যদি কেউ বিজেপিতে গিয়ে ভুল করেন, আসুন আমাদের কাছে! এখানেই শাসন-বিচার আছে: মমতা - VedasBD.com

Breaking

Tuesday, 21 July 2020

যদি কেউ বিজেপিতে গিয়ে ভুল করেন, আসুন আমাদের কাছে! এখানেই শাসন-বিচার আছে: মমতা


একুশের মঞ্চে ভার্চুয়াল সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যাইয়ের রাজনৈতিক দিক থেকে এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জার হল বিজেপি। এদিন মমতা বিজেপিকে বাংলা ছাড়া করার ডাক দিলেন, এদিন মমতা একুশের নির্বাচনে বিজেপির জামানত বাজেয়াপ্ত করার কথাও বললেন। এছাড়াও তিনি বলেন যদি কেউ সিপিএম, কংগ্রেস বা বিজেপিতে গিয়ে ভুল করেন, তাহলে চলে আসুন তৃণমূলে, এখানেই শাসন ও বিচার আছে। চলে আসুন আমাদের দলে। ২১-এর নির্বাচনে বিজেপিকে উৎখাত করে দিব।

ভার্চুয়াল সভা থেকে মমতা বলেন বিজেপির নেতারা রাতে অনেককে ফোন করে বলছে বিজেপিতে চলে এসো, বিধায়ক করে দেব এসব নানা ধরনের লোভ দেখিয়ে বাংলাকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র করছে। বাংলা ফের বিশ্বে প্রথম স্থানে আসবে, বাংলা থেকে বিজেপিকে উৎখাত করবো, এটাই আমাদের শপথ, এটাই আমাদের প্রতিক্ষা। ফাগুনে বাংলায় ফুল ফোটে, বৈশাখে এই মাটিতে আগুনও জ্বলে এটা মনে রাখবেন। ২০২১ সালে বিজেপিকে জবাব দেওয়া হবে। ভাটপাড়ায় কী হয়েছে। বিজেপিকে ভোট দিয়ে কী হয়েছে তা ব্যারাকপুর, নৈহাটি, বঁনগায় গিয়ে দেখুন, কী অবস্থা হয়েছে সেখানে বিজেপিকে ভোট দিয়ে।


২১ জুলাই দিচ্ছে ডাক, বিজেপি বাংলা থেকে নিপাত যাক। ২১ মানে লড়াই, সংকল্প, বাংলার পথ দেখাবে। ভোটের সময় যারা টাকা দেয়, সেই টাকা জনগণের টাকা। কিন্তু টাকার বদলে ভোট দেবেন না। টাকা কোথা থেকে আসছে তা জেনে নেবেন। ২১শের মে মাসে বিজেপির জামানত বাজেয়াপ্ত করে বাংলা ছাড়া করতে হবে। বিজেপি ভোটের আগেই টাকা ছড়িয়ে জাল বিছাবে। আমার বুথের কর্মীরা ভয় না পেলে আমরা ভয় পাই না। আমি বন্দুক-গুলি কিছুতেই ভয় পাই না। দিল্লির তাবেদার বলছে উপাচার্যদের গায়ে হাত দেব, বলেছি একবার হাত দিয়ে দেখুন কী হয় অবস্থা। ছাত্র আন্দোলন কী হয়। রাজনৈতিকভাবে বিজেপির লম্ফঝম্ফ বন্ধ করুন। আজ থেকেই কাজ শুরু করুন। ওঁদের বিশ্বাস করলে জীবন ও জীবিকা দুইই যাবে। সব চলে যাবে।

এছাড়াও মমতা ভার্চুয়াল সভা থেকে বলেন গুজরাত সারা দেশ শাসন করবে, সেটা হবে না। তাহলে রাষ্ট্রপতি শাসন করে দিন না। তাহলেই হয়ে যাবে। বিজেপি তুচ্ছ রাজনৈতিক দল, সিপিএম-এর ৩৫ বছরের সরকার ফেলে দিলাম। বিজেপি টাকা দিয়ে সরকার ভাঙে। রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, কর্ণাটকে টাকা দিয়ে সরকার ফেলে দেয়। আমি চিরকাল বাঁচবো না। কিন্তু এমন বাংলা তৈরি করে দিয়ে যাব যেখানে আমার মা বোনেরা, দরিদ্ররা না খেয়ে থাকবে না।কেন বিজেপির বিধায়ক মারা গেলেন তার জন্য পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করব। আগামী একুশে মে বাংলা বাংলায় থাকবে সেটা প্রমাণ করতে হবে। আমি জানি বিজেপি থেকে নির্বাচনের সময় অনেকের একাউন্টে টাকা দিয়ে দেওয়া হবে। শিখিয়ে দিয়ে টাকা পয়সা পাঠিয়ে দেওয়া হবে। 

No comments:

Post a comment