২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের আগে মমতাকে নির্বিষ করে দিতে চাইছেন মুকুল! - VedasBD.com

Breaking

Monday, 27 July 2020

২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের আগে মমতাকে নির্বিষ করে দিতে চাইছেন মুকুল!


২০১৯-এ তৃণমূলকে ভেঙে বিজেপির জয় হাসিল করার মূল কারিগর ছিলেন মুকুল রায়। তৃণমূলে তিনি সেকেন্ড ইন কম্যান্ড ছিলেন। তিনিই বিজেপিতে যোগ দিয়ে সাফল্য এনে দিয়েছিলেন বাংলার বুকে। এবার বিজেপির পাখির চোখ যখন ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচন, মুকুল চাইছে মমতাকে নির্বিষ করে দিতে।রাজনৈতিক মহলের একটা অংশ মনে করছে, আসন্ন নির্বাচনে তৃণমূলের কাছে মারীভয় হয়ে উঠতে পারেন মুকুল রায়। তাই তাঁর বিষদাঁত ভাঙতে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মুকুল রায়কে নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানোর পিছনে তৃণমূল রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন খোদ কৈলাশ বিজয়বর্গীয়। মুকুল রায়ও এইসব রটনাকে চক্রান্ত বলে দাবি করেছেন। মুকুল রায়কে নিয়ে নানা জল্পনা ছড়ানোর প্রতিবাদে কৈলাশ বিজয়বর্গীয় বলেন, বাংলার রাজনীতিতে পরিকল্পনা করেই এসব করা হচ্ছে। মুকুল রায়ের বদনাম করানোই মূল লক্ষ্য। বিজেপিতে তাঁর আসন টলমল করে দিতে পারলেই অর্ধেক কাজ হয়ে যাবে। বিজেপির বিশ্বাস টলাতে পারলেই তৃণমূলের পাল্লা ভারী হয়ে যাবে।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, ২০১৯-এ তৃণমূলকে যেভাবে ভেঙে তছনছ করে দিয়েছিলেন মুকুল রায়। ঠিক একইভাবে তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্বকে ফের কাজে লাগিয়ে ফের বিজেপির দিকে টেনে নিয়ে আসবেন একাধিক নেতা-নেত্রীকে। তাঁদেরকে টিকিট দিয়ে সাংসদ হিসেবে জিতিয়ে আনার কৃতিত্ব সবাই দেখেছিল ২০১৯ নির্বাচনে। সম্প্রতি মুকুল রায়কে নিয়ে নানা জল্পনা হয়েছে। কখনও শোনা গিয়েছে তিনি তৃণমূলের সঙ্গে গোপন বৈঠক করেছেন, কখনও শোনা গিয়েছে বিজেপি তাঁকে গুরুত্ব দিচ্ছে না। তাই তৃণমূলে আসার জন্য পা বাড়িয়ে আছেন তিনি। এমনকী তাঁর ছেলে বীজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশুকে নিয়েও জল্পনার পারদ চড়েছিল।

আর এই জল্পনার তালিকায় বেশি প্রভাব ফেলেছিল দিল্লির বৈঠকের মাঝপথে মুকুল রায়ের কলকাতায় ফেরা। সেইসঙ্গে মুকুলের দিল্লির বাড়ি থেকে নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহদের ফ্লেক্স-ব্যাটন খুলে ফেলা। সেই জল্পনার জবাব দিতে গিয়েই মুকুল রায় বলেন, তাঁকে নিয়ে চক্রান্ত হচ্ছে। তিনি বিজেপিতেই ভালো আছেন, বিজেপিতেই থাকবেন, তিনি তৃণমূলে যাচ্ছেন না।

No comments:

Post a comment