২০২১ নির্বাচনের আগে মুকুল রায়কে আলাদা অফিস করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল বিজেপি! - VedasBD.com

Breaking

Tuesday, 30 June 2020

২০২১ নির্বাচনের আগে মুকুল রায়কে আলাদা অফিস করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল বিজেপি!


মুকুল রায়কে আলাদা অফিস করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল বিজেপি এমনকী একা মুকুল রায়ের অফিসই নয়, সেইসঙ্গে অমিত শাহেরও একটা অফিস তৈরির পরিকল্পনা হয়েছে। বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে তাঁকে অনেক, দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সেই সব দায়িত্ব পালন বিজেপির নতুন অফিস থেকেই করবেন মুকুল রায়। কলকাতার অদূরে নিউ টাউন বা সল্টলেকে আলাদা অফিস হচ্ছে তাঁর জন্য। বিজেপিতে রাজনৈতিক ‘অভ্যুত্থান' তদারকি করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তাঁকে। এছাড়া বেশ কিছুদিন ধরেই মুকুল রায় ফের খবরের শিরোনামে উঠে আসেন। জানা যায় তিনি বিজেপিতে খুশি নেই। সে জন্য তাঁকে মন্ত্রিত্ব এবং কেন্দ্রীয় পদ দেওয়া হয়েছে।


এরই মধ্যে তাঁকে নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছিল, তিনি নাকি তৃণমূলে ফেরার পরিকল্পনা করছেন। এছাড়া দু-বার তৃণমূলের সঙ্গে তাঁর বৈঠক হয়েছে বলেও বিশ্বস্ত সূত্রে খবর মেলে। মুকুল রায় অবশ্য সেই সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দেন সমূলে। প্রশ্ন ওঠে, ২০২১-এর নির্বাচনের আগে তিনি আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত কেনো নিলেন তা নিয়ে চর্চা চলছে রাজ্য রাজনীতিতে। এর নেপথ্যে যা গূঢ় রহস্যউই থাকুক না কেন, মুকুল রায় সাফ জানিয়ে দেন তিনি তো রাজ্য নেতা নন। তিনি বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা, তাহলে তাঁর রাজ্য দফতরে যাওয়া বাধ্যতামূলক নয়।

এরপরই বিজেপির তরফেও জানানো হয় মুকুল রায়কে নিয়ে আলাদা করে ভাবছে বিজেপি। মুকুল রায়কে ২০২১-এর আগে অনেক দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সে জন্য তাঁর বিজেপির সদর দফতরে আসার কোনও প্রয়োজন নেই। পৃথক অফিস হচ্ছে তাঁর জন্য। সেখান থেকেই তিনি বিজেপির হয়ে রাজনৈতিক অভ্যুত্থানের রসদ জোগাড় করবেন। তবে শুধু একা মুকুল রায়েরই নয়, ২০২১-এর লক্ষ্যে বিজেপির প্রাক্তন সর্বভারতীয় সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের জন্যও একটি পৃথক অফিস তৈরি করা হচ্ছে এ রাজ্যে। কারণ শাহ এবার বিধানসভা নির্বাচনের জন্য পশ্চিমবঙ্গে অনেক বেশি সময় দেবেন। অনেক বেশি প্রচারমুখী থাকবেন। তাই সল্টলেকেই কোনও অফিস খোঁজা হচ্ছে।

No comments:

Post a comment