নেপাল পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারালেন বিহারের এক ভারতীয়, আহত দুই! সীমান্তে ছড়াল চরম উত্তেজনা! - VedasBD.com

Breaking

Friday, 12 June 2020

নেপাল পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারালেন বিহারের এক ভারতীয়, আহত দুই! সীমান্তে ছড়াল চরম উত্তেজনা!


বিহারের সীতামড়ি এলাকায় ভারত-নেপাল সীমান্তের পাশে গোলাগুলিতে এক ব্যাক্তির মৃত্যু হয়েছে আর দুজন আহত হয়েছে। বিহারের আর্মড পুলিশ দল এই ঘটনার কথা স্বীকার করেছে। স্থানীয়রা জানান যে, নেপালের তরফ থেকে গুলি চালানোর পর এই ঘটনা ঘটে। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, জানকিনগর বর্ডারে নেপাল পুলিশের তরফ থেকে ফায়ারিং করা হয়েছিল। ওই ফায়ারিংয়ে এক ভারতীয়র মৃত্যু হয়েছে এবং দুজন আহত হয়েছে। সাধারণ নাগরিকদের মধ্যে একজনকে টেনে হিঁচড়ে নিজেদের সীমান্তে নেপাল পুলিশ নিয়ে গিয়েছে বলে খবর।আহতদের অবস্থা গুরুতর বলে জানা যাচ্ছে। এই ঘটনার পর সীমান্তে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। লাদাখ সীমান্তে চিন খানিকটা স্তিমিত হতেই , এবার ভারত নেপাল সীমান্তে গোলা বারুদ নিয়ে যুদ্ধে উস্কানি দিতে তৈরি নেপাল।

.
বহু দিন ধরেই উত্তরাখন্ড, নেপাল সীমান্তের ৩ টি জায়গা নিয়ে নেপাল ও ভারতের মধ্যে সংঘাত বহুদিনের। এবার সেই পরিস্থিতিকে উস্কানি দিতে শুরু করেছে নেপাল। ঘটনার পর আপাতত বর্ডারে দুই দেশেই পুলিশ মোতায়েন আছে। সীমান্তে উত্তেজনার পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে বড় আধিকারিকরা বর্ডারে পৌঁছেছেন। উল্লেখ্য, নেপালের নতুন মানচিত্র নিয়ে ভারত আর প্রতিবেশী দেশ নেপালের মধ্যে বিবাদের সৃষ্টি হয়েছে। নেপালের নতুন নকশায় ভারতের অনেক অংশকে যোগ করা হয়েছে।
.
ভারতের তরফ থেকে যেমন এই ঘটনার প্রতিবাদ জানানো হয়েছে, তেমনই নেপালের তরফ থেকেও এই ঘটনার প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে নেপাল ভারতের সঙ্গে কথা বলতে চেয়ে সচিব পর্যায়ের বৈঠকের আহ্বান জানায়। যাতে সায় দেয়নি ভারত। এরপরই ফুঁসতে শুরু করেছে কাঠমাণ্ডু। নেপালের বিদেশমন্ত্রী জানিয়েছেন, ভারত এখনও পর্যন্ত তাঁদের তরফে দেওয়া সীমান্ত সংঘাত নিয়ে আলোচনার প্রস্তাবে সাড়া দেয়নি। এপ্রসঙ্গে তাঁর ক্ষোভ, যদি লাদাখ সীমান্তে চিন ভারত সংঘাত নিয়ে বেজিং এর সঙ্গে দিল্লি কথা বলতে পারে, তাহলে কাঠমান্ডু দিল্লি আলোচনা হবে না কেন?

No comments:

Post a comment