পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় গভীর রাতে মন্দিরে আগুন দিয়েছে ইসলামী কট্টরপন্থীরা - VedasBD.com

Breaking

Thursday, 5 March 2020

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় গভীর রাতে মন্দিরে আগুন দিয়েছে ইসলামী কট্টরপন্থীরা

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় গভীর রাতে মন্দিরে আগুন দিয়েছে ইসলামী কট্টরপন্থীরা

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় একটি সার্বজনীন মন্দিরে গভীর রাতে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাত দুর্বত্তরা। আগুনে মন্দিরের পূজার সরঞ্জামাদি, বাদ্যযন্ত্র পুড়ে গেছে। এ সময় দুর্বৃত্তরা মন্দিরসংলগ্ন এক গৃহস্থের বাড়ির দুটি খড়ের গাদায় আগুন লাগিয়ে দেয়। উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের গোলবুনীয় গ্রামের সার্বজনীন সেবাশ্রম ও মন্দিরে মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে এ অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।
.
ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক শ্রী রণজিৎ কুমার বেপারী জানান, ১৯৯২ সালের গোলবুনীয় গ্রামের ৫ শতাংশ জমিতে সার্বজনীন সেবাশ্রম ও মন্দিরটি প্রতিষ্ঠিত হয়। মন্দির প্রতিষ্ঠার পর গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায় সম্মিলিতভাবে এখানে প্রতিবছর দুর্গাপূজা, সরস্বতী পূজা, বাৎসরিক কীর্তনসহ নানা পূজার আয়োজন করে আসছে। মঙ্গলবার গভীর রাতে কে বা কারা মন্দিরে অগ্নিসংযোগ করলে মন্দিরের মালামাল পুড়ে ছাই হয়। এ সময় দুর্বত্তরা মন্দিরসংলগ্ন কৃষক বীরেন বেপারীর বাড়ির খড়ের গাদায় আগুন লাগিয়ে দেয়।
.
তবে স্থানীয়রা এক সাংবাদিক কে জানান মন্দির নিয়ে কোনো বিরোধ নেই, আগুনের কোনো রহস্য আমরা উদ্‌ঘাটন করতে পরিনি। তবে আমাদের সন্দেহ মুসলিমদের উপর। এদিকে মন্দিরে অগ্নিসংযোগের খবর পেয়ে পুলিশ বুধবার সকালে ঘটনাস্থলে যান।
.
মঠবাড়িয়া থানার ওসি মো. মাসুদুজ্জামান ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, আমি ঘটনাস্থলে আছি। অগ্নিকাণ্ডের সময় মন্দিরে কেউ ছিলেন না। ফলে আগুন লাগানোর ঘটনা উদ্‌ঘাটন করা যায়নি। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেব। মন্দিরে অগ্নিসংযোগের নিন্দা জানিয়ে মঠবাড়িয়া উপজেলা পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্রী পঙ্কজ সাওজাল বলেন, উপসনালয়ে অগ্নিসংযোগ দুঃখজনক। সুষ্ঠু তদন্ত ও অপরাধীর যথাযথ বিচার দাবি করছি।

No comments:

Post a comment