স্বামী বিজেপিতে যোগদান করাই তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর পেটে লাথি মেরে ভ্রূণ হত্যা, অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে - VedasBD.com

Breaking

Thursday, 20 February 2020

স্বামী বিজেপিতে যোগদান করাই তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর পেটে লাথি মেরে ভ্রূণ হত্যা, অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে

স্বামী বিজেপিতে যোগদান করাই তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর পেটে লাথি মেরে ভ্রূণ হত্যা, অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে

আবারও একবার তৃণমূলের সদস্যদের নামে বিজেপির কর্মীর উপর হামলার অভিযোগ উঠল। অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর পেটে লাথি মেরে ভ্রূণ নষ্ট করে দেওয়ার অভিযোগ জানায় আক্রান্ত বিজেপি কর্মী। হাসনাবাদ  থানায় এই অভিযোগ জানায় আক্রান্ত সোনালি বিবির স্বামী। ইতিমধ্যেই ঘটনাটির তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। বসিরহাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে সোনালি বিবিকে।

.
ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাতে হাসনাবাদ থানার বরুণহাটের ট্যাংরা গ্রামে। বিজেপি করার অপরাধে স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরা তাঁদের বাড়ির উপর চড়াও হয়ে  এবং তাঁর স্বামী ও তাঁর মা, বোন এবং অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর উপর মারধোর করে বলে অভিযোগ জানায়। এরপর সোনালি বিবিকে প্রথমে টাকি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখান থেকে বসিরহাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে পাঠানো হয়।

.
সোনালী বিবির প্রাথমিক পরীক্ষা করে বসিরহাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের সুপার শ্যামল হালদার বলেন, ‘‘মহিলার গর্ভের ভ্রূণ নষ্ট হয়েছে, এই কথা টাকি হাসপাতাল থেকে তাঁদের জানানো হয়েছিল। পরে বুধবার দিন এই মহিলাকে আমাদের হাসপাতালে নিয়ে আসে।’’ ঘটনার বিবরণে সোনালি বিবি বলেন, ‘‘রাত ১০টায় তৃণমূলের কয়েক জন বাড়িতে এসে আমার স্বামীকে মারধর শুরু করে। আমি বাধা দিতে গেলে, তাঁরা আমার পেটে লাথি মারে।
.
সূত্রের খবর অনুযায়ী সোনালী বিবির স্বামী বিজেপি সভায় যোগদানকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাঁর সঙ্গে তৃণমূল কর্মীদের ঝামেলা শুরু হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে তাঁরা লাঠি-রড নিয়ে তাঁর বাড়িতে চড়াও হয়ে তাঁর স্ত্রী, মা ও বোনকে মারধোর করে। তৃণমূল সদস্যদের এই মারধরের জেরেই তাঁর সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার আগে মারা গেল বলে অভিযোগ জানানো হয়েছে।

No comments:

Post a Comment